1. admin@muktijoddhatv.xyz : admin :
  2. mainadmin@muktijoddhatvonline.com : mainadmin :
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন

খোকসায় বিনোদন পার্ক না থাকায় শিশুদের মানসিক বিকাশ ব্যহত।

মোঃ আব্দুল আলীম, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা টেলিভিশন
  • Update Time : রবিবার, ৮ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ২০৮ Time View

খোকসায় বিনোদন পার্ক না থাকায় শিশুদের মানসিক বিকাশ ব্যহত।

মোঃ আব্দুল আলিম, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি:

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলায় নেই সরকারি বা বেসরকারি কোনো পার্ক বা বিনোদন কেন্দ্র। এ উপজেলার মানুষ মনের খোরাক মেটাতে ও ঘুরতে বিনোদনকেন্দ্র হিসেবে বেছে নিয়েছেন রেললাইন ও স্থানীয় গড়াই নদীর পাড়।

এছাড়াও উঠতি বয়সের যুবকরা কেরাম বোর্ড কিংবা মোবাইল ফোনের ক্ষতিকর গেমে আসক্তি হয়ে পড়ছে। অভিভাবকরাও চান তার শিশু শিক্ষার পাশাপাশি বিনোদনের মাধ্যমে মানসিক বিকাশ ঘটুক। একদিকে কোন পার্ক বা বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় চিত্ত বিনোদন থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এলাকাবাসী। অন্যদিকে সৃজনশীল মনোভাব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিশুরা।

বর্তমানে গড়াই নদীটি দখল ও ভরাটে সংকোচিত হয়ে পড়ছে। এই নদীটি পুনঃ খননের মাধ্যমে গড়ে তোলা যেতে পারে একটি অধুনিক পর্যটন কেন্দ্র। গড়াই নদীর পাড় ঘেঁষে বিনোদন কেন্দ্র গড়ে উঠলে নদীর সৌন্দর্য যেমন বৃদ্ধি পাবে, অন্যদিকে মানুষের বিনোদনেরও কেন্দ্র হবে।

আনুষ্ঠানিক কোনো বিনোদন কেন্দ্র না থাকায়, গড়াই নদীর পাড়, গ্রামের মাঝখান দিয়ে নির্মাণাধীন সড়ক ও গড়াই নদীর ব্লকের স্থানে সময় কাটাতে ভিড় করছেন বিনোদন প্রেমিরা।

ব্যবসায়ী হাফিজুর ইসলাম বকুল বলেন, এলাকায় কোনো বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় পরিবার-পরিজন নিয়ে আমাদের উপজেলার বাইরে ছুটতে হয়। অথচ আমাদের এলাকাতেই যে নদীটি রয়েছে সে নদীর পাড় সংস্কারের মাধ্যমে এখানেই বিনোদন কেন্দ্র গড়ে তোলা সম্ভব। কতৃপক্ষ ইচ্ছে করলেই গড়াই নদীর পাড় ঘেঁষে মিনি পার্ক নির্মাণ করতে পারেন। তবে এজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আন্তরিকতা ও সমন্বিত উদ্যোগ জরুরি।

দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী হুসনা খাতুন বলেন, আমরা শিক্ষার্থীরা পড়াশোনার পাশাপাশি অবসর সময় কাটানোর কোন জায়গাও পাইনা। অবসর সময়ে রেললাইনে, এলাকার পুকুর পাড়ে, মাঠে, আশপাশের বিভিন্ন জায়গায় চিত্ত বিনোদনের জন্য সময় কাটাই। কিন্তু অন্যান্য উপজেলা পর্যায়েও বিভিন্ন পার্ক বা বিনোদন কেন্দ্র রয়েছে যা খোকসাতে নেই। খোকসা কোন পার্ক বা বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণ করা হলে আমাদের চিত্ত বিনোদনের জন্য বেশ সুবিধা হত।

খোকসা জানিপুর পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সালমা খাতুন বলেন, শিশুদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশের জন্য জরুরী ভাবে সাংস্কৃতিক জনপদ হিসেবে খ্যাত খোকসাতে একটি পার্ক বা বিনোদন কেন্দ্র গড়ে তোলা দরকার। এতে শিশুদের মানসিক বুদ্ধিমত্তার ব্যাপক বিস্তার ঘটবে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রিপন বিশ্বাস বলেন, নয়টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত উপজেলায় শিশুদের সুস্থ বিনোদনের জন্য বিনোদন পার্ক নেই। গড়াই নদীর পাড়ে অত্যন্ত মনোরম পরিবেশে বিনোদন কেন্দ্র নির্মাণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024 Coder Boss
Design & Develop BY Coder Boss