1. admin@muktijoddhatv.xyz : admin :
  2. mainadmin@muktijoddhatvonline.com : mainadmin :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

জাতীয়করণের দাবিতে বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের মানববন্ধনমো

মোঃ মামুনুর রশিদ,স্টাফ রিপোর্টার, মুক্তিযোদ্ধা টেলিভিশন
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৮ জুন, ২০২৩
  • ২১৯ Time View

বৃহস্পতিবার
২৫শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
৮ই জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

জাতীয়করণের দাবিতে বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকদের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার
মোঃ মামুনুর রশিদ :

বাংলাদেশ বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি রাজশাহী বিভাগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার মধ্য থেকে বাদপড়া বিদ্যালয়সমুহ জাতীয়করণসহ ছাত্র-ছাত্রীদের উপবৃত্তি টিফিনের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার জেলা প্রসাশক কার্যালয়ের সামনে রাজশাহী বিভাগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী লিটন উপস্থিতিতে ইসমাইল হোসাইন উপস্থাপনায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন উপজেলা ও জেলা থেকে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক/শিক্ষিকাগণ অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষকরা বলেন, শিক্ষা মানুষের মৌলিক অধিকার। আর সেই শিক্ষাদান করে থাকেন প্রাথমিক শিক্ষকেরা। অধিকার আদায়ে তারা সারা বছর রাজপথে আন্দোলন করে থাকেন, যা একটি দেশের জন্য কাম্য নয়।

গত ৪-০৩-২০২৩থেকে ২০-০৪-২০২৩ পর্যন্ত দীর্ঘ ১৭দিন জাতীয়করণের দাবীতে রাজপথে আন্দোলন করি। শিক্ষকদের দাবি ৯ জানুয়ারি ২০১৩ সনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের ঘোষণা দিয়ে জাতির পিতার মত আরও একটি ইতিহাস রচনা করেন।

তারা বলেন, অত্যান্ত পরিতাপের বিষয় যে, জাতীয়করণ কালীন ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিসংখ্যান করা হয়েছিল তার সংখ্যা যথাযথ না হওয়ায় জাতীয়করণযোগ্য আরও কিছু সংখ্যক বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কর্মরত শিক্ষকগণ জাতীয়করণ হতে বাদপড়ে।

তারা জানান, ৩য় ধাপের বিদ্যালয়সমূহ জাতীয়করণের ক্ষেত্রে ২৭মে ২০১২ সনের পূর্বে স্থাপিত ও পাঠদানের অনুমতির জন্য আবেদনকৃত বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হবে। একই সম-পরিমান যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তৎকালীন কিছু কর্মকর্তা কর্মস্থলে না থাকায়, সকল শর্ত পূরণ করার পরেও ৪১৫৯টি বিদ্যালয় জাতীয়করণের অন্তুর্ভুক্ত হয়নি।

এই বিদ্যালয়গুলোর মধ্যে থেকে ২০১২ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীসহ ১৩০০ বিদ্যালয় জাতীয়করণের জন্য উপজেলা ও জেলা যাচাই বাচাই করা হয়েছে। যা মন্ত্রণালয় সংরক্ষণ করা আছে।

জাতীয়করণ কালীন সময়ে পাঠদানের অনুমতি ও রেজিট্রেশন এর কার্যক্রম স্থগিত রাখায় আমরা বেতন-ভাতা সুবিধা ও ছাত্র-ছাত্রীরা উপবৃত্তি টিফিন থেকে বঞ্চিত হয়।

শিক্ষক নেতারা বলেন, গত ১৮ই এপ্রিল-২০২৩ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে নতুন করে বিদ্যালয় বিহীন এলাকায় ১ হাজার বিদ্যালয় স্থাপনের একটি প্রকল্প প্রস্তাব করেন। শিক্ষকদের দাবি ৪১৫৯টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়/ বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় বা মৌজায় প্রতিষ্ঠিত হয়ে পাঠদান পরিচালনা করে আসছে।

এমনকি এই বিদ্যালয়গুলোর জায়গা জমি খাজনা খারিজ সরকারের নামে হস্তান্তর করা হয়েছে। তাই প্রয়োজনে ১ হাজার প্রকল্পের পরিবর্তে ৪১৫৯টি থেকে ১ হাজার বিদ্যালয় জাতীয়করণসহ ধাপে ধাপে জাতীয়করণের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অনুরোধ করেন। এই লক্ষ্যে ১০মে/২০২৩খ্রিঃ জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করে সরকার কে আহ্ববান জানানো হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সুমন কুমার চাকী, ইসমাইল হোসেন সিদ্দিক, কাওছার, আঃ রশিদ, শামছুল, সালেহ, কামরুজ্জামান, মিজানুর রহমান, খোকন দাস, জাকির, আমজাদ, আবু বকর, মতিন, রেনুকা, রাজ্জাক, নূর মোহাম্মদ, লুৎফর, আতিক, সেলিম রেজা, মাসুদ, রুহুল আমিন, বাসেদ, শাপলা, আলামিন, মনোরঞ্জন, আঃ লতিফ,জাকির মোশারফ, রিপন, তাছলিমা প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024 Coder Boss
Design & Develop BY Coder Boss